-Advertisement-
Smartphones
Trending

Infinix Note 40 5G এর রিভিউ প্রকাশিত

সম্প্রতি বাজারে  আসতে চলছে একটি  Infinix এর একটি স্মার্টফোন আর এই স্মার্টফোনকে ঘিরে তৈরি হয়েছে নতুন এক আলোচনা। তবে আপনারা অনেকেই আছেন যারা Infinix Note 40 5G  সম্পর্কে জানেন না তবে চিন্তার কোন বিষয় নেই কারন আজকের এই আলোচনায় আজ আমরা Infinix Note 40 5G এর সম্পর্কে পূণাঙ্গ রিভিউ প্রকাশ করেছি। তাহলে মোবাইলটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানাতে আমাদের সাথে পোস্টটি শেষ অবধি পড়ুন।

বাংলাদেশে দাম কত হতে পারে

বাংলাদেশে মোবাইলটি এখনও যদিও প্রকাশ পায়নি তবে মোবাইলটির দাম নিয়ে অনেকে জানাতে চান। তবে ধারণা করা হচ্ছে যে মোবাইলটির দাম ২৭ হাজার টাকার মধ্যে থাকতে পারে কিংবা ২৫০০০ টাকার আশে পাশে। কারন আন্তর্জাতিক বাজারে মোবাইলটির দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ২২০ ইউরো। তবে আপনি মোবাইলটি বাজারে আশা মাএ  Infinix এর অফিশিয়াল শো রুম গুলি ও বড় দোকানে পেয়ে যাবেন।

চার্জিং সুবিধায় Infinix Note 40 5G

Infinix Note 40 একটি শক্তিশালী ব্যাটারি সহ বাজারে আসতে চলেছে। মোবাইলটিতে 5000 mAh ব্যাটারি দীর্ঘস্থায়ী পারফরম্যান্স প্রদান করে। মোমবাতিটিতে ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সমর্থন করে, যা ৩১ মিনিটে ৫০% চার্জ করতে সক্ষম ও এছাড়াও, এটি ১৫ ওয়াটের ওয়্যারলেস MagCharge সমর্থন করে। আরও সুবিধার জন্য, এটি রিভার্স চার্জিং ও রিভার্স ওয়্যারলেস চার্জিং ফিচার রয়েছে এই স্মার্টফোনে, যা অন্য ডিভাইসগুলিকে চার্জ করতে সাহায্য করে। Infinix Note 40 5G মোবাইলটির এ সকল ফিচার মোবাইলটিকে  ব্যবহারকারীদের পছন্দের তালিকায় পৌঁছে দিয়েছে।

Infinix Note 40 5G এর রিভিউ প্রকাশিত
Infinix Note 40 5G

5G নেটওয়ার্ক সেবা

Infinix Note 40 5G এর নেটওয়ার্ক সেবায় রয়েছে 5G নেটওয়ার্ক সুবিধা। আর এই মোবাইলটির নেটওয়ার্ক স্পিড বেশ শক্তিশালী। তবে আপনি প্রয়োজন এর উপর ভিওি করে আপনি মোবাইলটিকে 4G, 3G সেবা গ্রহণ করতে পারবেন। এছাড়া আপনি এই মোবাইলটিতে দুইটি ন্যানো আকৃতির সিম কার্ড ব্যবহার করতে পারবেন।

ক্যামেরা

Infinix বাজারে আনছে 108MP ত্রিপল ক্যামেরা এমন একটি লেখা আমরা পূর্বে আমাদের এই ওয়েবসাইটে প্রকাশ করেছিলাম আর এই মোবাইলটির ক্যামেরা সম্পর্কে আপনাদের জানিয়েছিলাম। এই মোবাইলটিতে রয়েছে থ্রিপল ক্যামেরা সেটআপ ক্যামেরা যা ১০৮ মেগাপিক্সেল+২মেগাপিক্সেল+২মেগাপিক্সেল। মোবাইলটির পিছনে ক্যামেরায় বেশ কিছু ফিচার রয়েছে যা ছবির মানকে আরো ভালো করে। তবে আপনি এই মোবাইলটির পিছনে ক্যামেরা ব্যবহার করে সর্বোচ্চ 1440p@30fps ফরমেটের এর ভিডিও ধারণ করতে পারবেন।

মোবাইলের সামনের ক্যামেরা ও বেশ চমক রয়েছে কারণে এই মোবাইলটির সামনে ক্যামেরা রয়েছে ৩২ মেগাপিক্সেলের একটি দুর্দান্ত ক্যামেরা। আর ক্যামেরার ফিচার হিসেবে রয়েছে ডুয়েল ফ্লাস লাইট। যা বলতে গেলে ইনফিনিক্স এর এক প্রকার চমক বলা যায়। তবে আপনি এই সামনের সেলফি ক্যামেরাটি দিয়ে সর্বোচ্চ 1080p@30fps ফরমেটের ভিডিও ধারণ করতে পারবেন। তবে ক্যামেরাতে ছোঁয়া তোলা ছবি মানকে ভালো করার জন্য ও এছাড়া বিভিন্ন ধরনের ফিচার আপনি এই স্মার্টফোনের সেলফি ক্যামেরায় পাচ্ছেন।

কানেক্টিভিটি

মোবাইল থেকে কানেক্টিভিটি বলতে গেলে বেশ ভালো কারণ এই মোবাইলটিতে wi-fi, ব্লুটুথ, রেডিও, জিপিএস এই সকল ধরনের ফিচার উপলব্ধ। যদি এক কথায় বলা হয় তাহলে একের ভিতর সব ধরনের ফিচার যা থাকা প্রয়োজন একটি মোবাইলের কানেক্টিভিটি হিসেবে তা সবকিছুই রয়েছে এই স্মার্টফোনে। সেক্ষেত্রে মোবাইল দিয়ে কানেক্টিভিটি নিয়ে কোন অভিযোগ করার কোন উপায় নেই।

ডিসপ্লে

ডিসপ্লের দিকেও তারা কোন কমতি রাখেনি কারণ এই স্মার্টফোনের ডিসপ্লে টাইপ হচ্ছে AMOLED। আর মোবাইলটি ডিসপ্লে বেশ বড় কারণ এই মোবাইলটির ডিসপ্লে রাখা হচ্ছে ৬.৭৮ ইঞ্চি। AMOLED এর ডিসপ্লে থাকছে ইনফিনিক্স কম দামী ফোনে এমন একটি পোস্ট আমরা পূর্বে প্রকাশ করেছিলাম এই মোবাইলটি সম্পর্কে। আপনি যদি এই মোবাইলটি ডিসপ্লে সম্পর্কে পূর্ণাঙ্গ তথ্য জানতে চান তাহলে অবশ্যই উক্ত পোস্টটি এক নজরে দেখে নিন। মোবাইলটিতে ১৩০০ নিটস এর উজ্জ্বলতা রয়েছে যা রোদের মধ্যে  খুব অনায়াসে  ফোন ব্যবহার করতে আমাদের সাহায্য করে। এছাড়া ফোন দিতে রয়েছে 120 হার্জের রিফ্রেশ রেট যা আমাদের গেমিং করার ও মোবাইল ব্যবহার করার অভিজ্ঞতাকে আরো বাড়িয়ে তুলে।

পারফরম্যান্সে রয়েছে চমক

ইনফিনিক্স এর নতুন ফোনে Mediatek Dimensity 7020  ব্যবহার করা হয়েছে আর এই ফোনটি হচ্ছে Infinix Note 40 5G। লেটেস্ট অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ১৪ ও ইনফিনিক্সের অপারেটিং সিস্টেম XOS 14 এ পরিচালিত হচ্ছে মোবাইলটি। Octa-core (2×2.2 GHz Cortex-A78 & 6×2.0 GHz Cortex-A55) এর CPU ব্যবহার করা হয়েছে এই মোবাইলটিতে যা ব্যবহারকারীদের ব্যবহার করার অভিজ্ঞতা আরো বেশি করবে। এছাড়া মোবাইলটিতে ৫১২ জিবি রম রয়েছে ও RAM হিসেবে রয়েছে ১২ জিবি।  যথেষ্ট পরিমাণের RAM ও ROM প্রদান করার কারণে এই মোবাইলটি পারফরমেন্স এর ক্ষেত্রে তেমন কোন অসুবিধা লক্ষ্য করা যায় নি।

সাউন্ড কোয়ালিটিতে Infinix Note 40 5G

মোবাইলটির কোয়ালিটি বেশ ভালো। তবে মোবাইলটিতে লাউড স্পিকার রয়েছে ও লাউড স্পিকার এর সাথে রয়েছে stereo speakers । তবে একটি বিষয় এখানে কমতি পাওয়া গেছে এই মোবাইলটিতে ৩.৫ মিলিমিটার জ্যাক ব্যবহার করা যাবে না যা মূলত হেডফোন জ্যাক হিসেবে পরিচিত। মূলত কথা হচ্ছে আপনি মোবাইলটিতে ৩.৫ মিলিমিটার হেডফোন চেক ব্যবহার করতে পারবেন না। তবে সাউন্ড এর ফিচার হিসেবে রয়েছে Tuned by JBL ও 24-bit/192kHz Hi-Res audio।

ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট

ফিঙ্গারপ্রিন্টের দিক থেকে যদি বলা হয় তাহলে এক্ষেত্রেও তারা ব্যবহারকারীদের হতাশ করেনি। তারা ফিঙ্গারপ্রিন্ট হিসেবে মোবাইলটিতে ব্যবহার করেছে ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট যা ব্যবহারকারীদের কাছে খুব প্রিয় একটি ফিঙ্গারপ্রিন্ট। তবে এখানেই শেষ নয় কারণ মোবাইলটিতে আল্লাহ করার জন্য প্যাটার্ন পিন পাসওয়ার্ড সকল ধরনের ফিচারই উপলব্ধ হয়েছে।

সবশেষে, হয়তো আপনারা জানতে চাইবেন যে মোবাইলটি সেন্সর হিসেবে কি রয়েছে। accelerometer, gyro, proximity, compass এর সকল সিকচার সমৃদ্ধ সেন সরি এই ফোনটিতে আপনি পাবেন। এছাড়া আরো বেশ কিছু প্রয়োজনীয় সেন্সর রয়েছে যা i ফোনটিতে আপনি পাচ্ছেন।

মোবাইলটি কাদের জন্য ভালো হবে

মোবাইলটি বিশেষ করে তাদের জন্যই ভালো হবে যারা আমরা তো মিড রেঞ্জের একটি ভালো স্মার্টফোন ক্রয় করতে চাচ্ছেন। আর এই মোবাইলটি দিয়ে তারা ফটোগ্রাফি অফ গেমিং করতে চাচ্ছেন তাদের জন্য মূলত এই মোবাইলটির একটি বেস্ট চয়েজ হতে চলেছে। তবে দৈনন্দিন জীবনে যারা সকল ধরনের কাজ করতে চান এই ফোনটি ব্যবহার করে তাদের জন্য বেশ একটি ভালো স্মার্টফোন হবে। যদি এক কথায় বলা হয় তাহলে মোবাইলটি সুবিধার দিক থেকে সুবিধার সংখ্যা অনেকটা বেশি।

আপনি আরো জানতে পারেন: ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্টে কম টাকায় দিচ্ছে ভিভো

(সব খবর প্রতি মুহূর্তে পেতে ফলো করুন আমাদের Google News পেজ

5/5 - (1 vote)

Mobile Dokan Price

This profile publishes articles from the Mobile Dokan Price editorial team and its own correspondents All the details of the technology world are verified and published from here.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *